1. iliycharman7951@gmail.com : admin :
  2. iliaych.arman@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
January 26, 2022, 2:06 pm
শিরোনাম:
চকরিয়া হাছিমারকাটা অলিম্পিক ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন ডুলাহাজারায় ইউপি মেম্বার রমজান আলীর মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এলাকাবাসির মানববন্ধন চকরিয়া বিএমচরে দিনদুপুরে বিকাশ পয়েন্টে হামলা,লুটপাট,আহত-২ চকরিয়া মাইজঘোনা ইসলামি আর্দশ ছাত্র ও যুব সংগঠনের উদ্যোগে হিফযুল কোরআন ও তাফসীর মাহফিল ১৭৭ পদে কর্মসংস্থান ব্যাংক এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি-২০২২ ডুলাহাজারা ইউপি নির্বাচন বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবিতে মেম্বার প্রার্থীদের যৌথ সংবাদ সম্মেলন চকরিয়ায় ১০ ইউনিয়নের ১২০ মেম্বারের শপথ গ্রহণ চকরিয়া ডুলাহাজারা ইউপি নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডে অনিয়ম ও ডিজিটাল কারচুপির অভিযোগ মেম্বার পদপ্রার্থী গিয়াস গাজীর কক্সবাজারে বেড়াতে এসে গণধর্ষণের শিকার এক গৃহবধূ! ২ ধর্ষক শনাক্ত বাংলাদেশের যে অঞ্চলে গরু,মহিষের জন্ম নিবন্ধন বাধ্যতামূলক

বান্দরবান ভাসছে তাজা ফলের মৌ মৌ সুগন্ধে

নির্বাহী সম্পাদক কতৃক প্রকাশিত
  • Update Time : Tuesday, June 1, 2021,
  • 226 Time View

বান্দরবান প্রতিনিধি ঃ 

পার্বত্য জেলায় ফরমালিনমুক্ত ও তাজা ফলের রসালো মেতেছে বাজারে। নিত্য নতুন দিনে ভরে গেছে মধুমাসের রসালো ফলের এই বান্দরবানে। সুস্বাদু ফলের অধিক সরবরাহ থাকায় রসালো ফলে বান্দরবান জেলা সদরের বাজারগুলোতে।

বান্দরবান বাজার ঘুরে দেখা যায়, বান্দরবান বাজারের বিভিন্নস্থানে আম, লিচু, কাঁঠাল, আনারস, জাম আর কলার সুগন্ধে জিহ্বায় জল এসে ফল খাওয়ার জন্য মনকে জাগিয়ে তুলছে। ও পাশাপাশি ভিন্ন রকমারি তাজা ফলে সুস্বাধু নিয়ে বসেছে মৌসুমি ফল বিক্রেতারা আর বাজার জমে উঠেছে কেনাকাটায়।

সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে লিচু তবে আম ও রয়েছে বাজার জুড়ে। তবে বাজার দিন রবিবার ও বুধবার হলে পাহাড়ের নেমে আসে ফলমুল ও শাকসব্জি। তবে গতবারের তুলনায় এবার মৌসুমি ফলের ফলন ভালো হলেও সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দাম এখনও সাধারণ ও নিম্নআয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে।

ওইদিকে বাজারগুলোতে প্রতিকেজি সুস্বাদু স্থানীয় জাতের আম যথাক্রমে ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। একইভাবে ১০০ লিচু বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকায়। ছোট-বড় সব আনারসই মিষ্টি। ছোট আনারস ৬০ টাকা জোড়া আর বড়গুলো ১০০ থেকে ১২০টাকা। প্রচণ্ড গরমে আনারস বেশ ভালোই বিক্রি হচ্ছে।

পাইকারি ফল বিক্রেতা সোহেল নূরের দর্পণকে জানান, পার্বত্য জেলা বান্দরবানে উৎপাদিত ফলে বিষাক্ত কোনো ফরমালিন ব্যবহার না করায় ক্রেতারা ও কিনছে নির্দ্বিধায়। ফলমুল নিত্যদিনে মত নতুন নতুন আসছে। তবে আনারস, আম ও লিচু চাহিদা অনেক বেশি। বান্দরবানে সাধারণ মানুষের কাছে এইগুলা প্রিয়। তাই মধুমাসের রসালো ফলের সরবরাহ বাড়ায় সন্তুষ্ট ক্রেতারা।

বাজারে আম কিনতে আসা ক্রেতা নুরুল আলম বলেন, বাজারে অনেক ভিন্ন রকমারি ফল উঠেছে। কিন্তু নতুন নতুন ফুল আগমন ঘটানো কারণে কিছু দাম প্রায় আগুনের মত। তবে কিনতে এসে বাজারে ফলের এই মজুদ দেখে সত্যিই ভালো লাগছে।

বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা বলেন, পার্বত্য অঞ্চল বান্দরবানে এখন বাজারজুড়ে অসংখ্য মৌসুমি ফল রয়েছে। যতই সামনে এগোচ্ছে ততই সুস্বাধু পাহাড়ে হতে বাজারে চলে আসছে। তিনি আরো বলেন, দেহের রোগ প্রতিরোধের জন্য প্রতিদিনই আমাদের যেকোনো একটি ফল খাওয়া প্রয়োজন। ফলের মাধ্যমে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং শরীরে পুষ্টির চাহিদা অনেকটাই পূরণ হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2021 LatestNews
Theme Customized BY Infobytesbd.com