1. iliycharman7951@gmail.com : admin :
  2. iliaych.arman@gmail.com : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
Title :
চকরিয়া হারবাং বিটে সামাজিক বনায়নের উপকারভোগীদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চকরিয়া পৌর নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী”আবু ছাদেক”এর নির্বাচনী পথসভা চকরিয়া পৌর নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী জিয়াবুল হকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন চকরিয়া লক্ষ্যারচরে ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন বিনা অনুমতিতে ইউপি অফিসে ঢুকে ফেসবুক লাইভ ধারণ;২ টি মোবাইল ফোন জব্দ লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এগিয়ে যাচ্ছে প্রধান কর্মকর্তা ডাঃ মহিউদ্দিন মাজেদ চৌধুরীর দক্ষতায় চকরিয়া উপকূলের ত্রাস টাইগার সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে গাছ কেটে বসতবাড়ি লুটের অভিযোগ সাহারবিল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ মিরিন্জায় চলন্ত গাড়ীতে হঠাৎ আগুন,২ যাত্রী আহত চকরিয়ায় চার তরুণের স্বপ্নে গড়া”ফুড হেভেন”রেস্টুরেন্টের শুভ উদ্বোধন আগামী শনিবার

নদী ভাঙনে বিলীন হওয়ার পথে পশ্চিম বাটাখালী মাস্টার পাড়া গ্রাম

অতিথি প্রতিবেদক
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১
  • ২৩৩ Time View

সৈয়দ ইসমাইল হোসেন সিরাজী ঃ  

কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড সর্বপশ্চিমে মাতামুহুরি নদীর অববাহিকায় কূল ঘেঁষে গড়া উঠা মাস্টার পাড়ার ২০/২৫ টি ঘর বাড়ি এবং মাস্টার পাড়া শাহী জামে মসজিদ ও বাটাখালী ব্রিজটি নদীভাঙনের চরম কবলে আক্রান্ত।

প্রায় ৩০ বছর ধরে বসবাসকারী২০/২৫ টি ঘর বাড়ি ভেঙে আজ উদ্বাস্তু হওয়ার পথে। মসজিদটিও যায় যায় অবস্থা। বাটাখালী ব্রিজটিও ভাঙন শুরু হয়েছে। আজ উদ্বাস্তু পরিবারগুলোর মাথা গুঁজাবার ঠাঁই নেই।অসহায় নারী ও শিশুরা খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছে।প্রশাসনের কোনো খোঁজখবর নেই’, দেখা নেই কোনো জনপ্রতিনিধিদের। অথচ নেতাদের পক্ষে মুখরোচক গল্প রচিত হচ্ছে -জাপানি সংস্থা জাইকা শহর রক্ষা বাঁধ করে দিবে,প্রকল্প তৈরি ও বাজেট হয়েছে। গল্পটা কিন্তু ৬-৭ বছর আগে থেকেই শুনে আসছে এলাকাবাসি।অসহায় মানুষ গুলো আশায় বুক বেঁধে কাটিয়েছে অনেক দিন। এ যেন রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় আসমান ভেঙে পড়ার ভয়ে হট্টিটি পাখির মতো পা ওপরের দিকে তুলে চিত হয়ে শুয়ে ঘুমানোর মতো।শেষাবধি আসমান ভেঙে না পড়ার আগেই তলার মাটি সরে গেলো,; ডাক্তার আসার আগেই রোগি মারা যাবার মতো।হাহাকার আর কান্না ছাড়া কিছুই বাকি রইলনা তাদের ।উদ্বাস্তু মানুষগুলো থাকার আশ্রয়টাই চোখের সামনে হারিয়ে ফেললো। প্রকৃতির এ নির্মম ছোবলে মানুষগুলো আজ নির্বাক, নিস্তব্ধ, আশাহীন।তাদের এই দুর্দিনে উপজেলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের কোনো উদ্যোগ নেই।নেই বিত্তবানদের কোনো সাহায্য সহযোগিতা।নেই কোনো পুনর্বাসনের ব্যবস্থা।নেই কোনো খোঁজখবর। অথচ এই জনপ্রতিনিধিরাই নির্বাচনের সময় মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে গণসংযোগকরেছিলেন,দুঃখ-দুর্রশায় খোজ খবর নিয়েছিলেন,সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন’।নির্বাচিত হলে বহুত বহুত উন্নয়ন ও জনসেবার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন।কিন্তু আজ দুর্দিনে তাদের জনপদে পদচারণাই নেই।

রাজনীতির দর্শন আজ পাল্টে গেছে। ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য রাজপথে পক্ষ বিপক্ষের মিছিল হয়,স্লোগান হয়, ভূমি দখল বেদখলের মহড়া হয়। এই জাতি রোহিঙ্গাদের সাহায্যের জন্য চাঁদা তুলে তহবিল গঠন করে উখিয়া টেকনাফে বহরে বহরে ত্রাণ সহায়তা পাঠাতে পারে কিন্তু নিজ এলাকায় বিপন্ন-বিপর্যস্ত-উদ্বাস্তু মানুষের খোঁজ খবর নেওয়ার পদক্ষেপই নেই,নেই কোনো উদ্যোগ। এই হলো- আমাদের বিত্তবান,জনদরদী, জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব ও জনসেবা।তাঁদের চেতনার ৬ষ্ঠ ইন্দ্রিয়টাকে জাগ্রত হউক।
মানবিক দিক বিবেচনা করে জরুরি ভিত্তিতে এই অসহায় মানুষগুলোর পুনর্বাসনের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2019 LatestNews
Theme Customized BY Infobytesbd.com